Saturday, April 20, 2024

চকরিয়ায় পুলিশের ওপর হামলার ২ আসামীকে পতেঙ্গা থেকে আটক করেছে র‌্যাব

এমরান হোসাইন :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পুলিশ সদস্যদের ওপর হামলা চালিয়ে অস্ত্র ছিনিয়ে নেয়া সেই আলোচিত ঘটনায় অন্যতম প্রধান ২ আসামিকে আটক করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার ৫ মে রাত সাড়ে ১১টায় চট্টগ্রাম পতেঙ্গা থানার ডেইলপাড়া এলাকায় র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১৫ যৌথ অভিযান পরিচালনা করে তাদেরকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো চকরিয়া থানার হাফালিয়াকাটা এলাকার নুরুল সওদাগরের ছেলে খাইরুল বশর ওরফে পুতু এবং আমির হোসেনের ছেলে মো. সালাউদ্দিন।

র‌্যাব জানায়, গত ২৫ এপ্রিল কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানার হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির এসআই শামীম আল মামুন ডিউটি করা কালে বড়ইতলী ইউনিয়নের পেকুয়া বড়ইতলী রোডস্থ শাপলা যুব সংঘ হাফালিয়াকাটা এলাকায় আসামি রাকিব’কে হাতে কিরিচসহ রোডের উপর দেখতে পায়। পরবর্তীতে পুলিশের টহল টিম রাকিব’কে গ্রেফতারের জন্য ধাওয়া করে। তখন রাকিব চিৎকার শুরু করে এবং তার চিৎকার শুনে ঘটনাস্থলের রাকিবের আত্মীয় স্বজন অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে তারা পুলিশের উপর হামলা চালায়। সে সময় রাকিবের হাতে থাকা কিরিচ দিয়ে এসআই শামীম আল মাসুম এর মাথায় কোপ মেরে গুরুতর জখম করে এবং রাকিবের অন্যান্য সহযোগীরা বাকি পুলিশ সদস্যদের কুপিয়ে পুলিশের একটি অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত ও রক্তাক্ত অবস্থায় এসআই শামীম আল মামুন, কনস্টেবল তারিকুল ইসলাম এবং মোহাম্মদ মামুনকে স্থানীয় লোকজনের সহযোগীতায় তৎক্ষনাত চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদেরকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। বর্তমানে আহত পুলিশ সদস্যরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিৎিসাধীন রয়েছে।

পরবর্তীতে উক্ত ঘটনায় পুলিশ সদস্য এসআই অপু দে বাদী হয়ে ৩০ জন নামীয় ও অজ্ঞাতনামা ১৫/২০ জনকে আসামি করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলা হওয়ার পর পরই কক্সবাজার জেলার চকরিয়া থানা পুলিশের একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে উক্ত ঘটনায় এজাহার নামীয় ১নং ও প্রধান আসামী রাকিবকে ছিনতাইকৃত অস্ত্রসহ আটক করলেও মামলার অন্যান্য আসামীদেরকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

এদিকে র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার বলেন, এ ঘটনায় পলাতক আসামিদের ধরতে র‌্যাব গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় পতেঙ্গার ডেইলপাড়া এলাকায় র‌্যাব-৭ ও র‌্যাব-১৫ এর যৌথ অভিযান চালিয়ে মামলার অন্যতম প্রধান আসামি খাইরুল বশর ওরফে পুতু এবং সালাউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা পূর্ব পরিকল্পনার মাধ্যমে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়ে অস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা স্বীকার করেছে বলে জানান তিনি।
গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page