Thursday, June 13, 2024

নাইক্ষ্যংছড়িতে প্রচার-প্রচারণা শেষ : কাল ভোট

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা গতকাল রবিবার মধ্যরাতে শেষ হয়েছে। ভোট গ্রহণ করা হবে আগামীকাল মঙ্গলবার। ইতিমধ্যে নির্বাচনের সব প্রস্তুতি শেষ করেছে প্রশাসন। উপজেলার পাঁচ ইউনিয়নের ২৬টি ভোট কেন্দ্রে নির্বাচনী সরঞ্জামাদি পৌঁছে যাবে আজ বিকেলে।

গতকাল প্রচারণার শেষ দিনে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শফিউল্লাহ নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে ও মোটরসাইকেল প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী, সাবেক চেয়ারম্যান তোফাইল আহামদ ঘুমধুম ইউনিয়নে ব্যস্ত সময় কাটান। সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত তাঁরা চষে বেড়ান ভোটের মাঠে। তাঁদের পক্ষে নেতা-কর্মী-সমর্থকেরাও প্রচারণা চালান।

নাইক্ষ্যংছড়ির ২৬টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১২টি ভোট কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।
এসব কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হবে।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আল আজাদ জানিয়েছেন,নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ৫ ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র ২৬টি। ভোটার সংখ্যা ৪৫ হাজার ২ শত ৭৯ টি। তন্মধ্যে পুরুষ ভোটার ২২ হাজার ৭ শত ৭০টি। মহিলা ভোটার ২২ হাজার ৫০৯ টি। বুথ সংখ্যা ১৩০ টি।

স্থানীয়রা জানান- চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীকের মোহাম্মদ শফিউল্লাহ ও মোটরসাইকেল প্রতীকের তোফাইল আহমদের মধ্যে লড়াই জমে উঠেছে। তবে সার্বিক বিবেচনায় এগিয়ে থাকছেন শফিউল্লাহ। অপর দিকে ভাইস-চেয়ারম্যান ২ জন ও মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান ৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। শেষ মূহুর্তে তারা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চাচ্ছেন আর চষে বেড়াচ্ছেন গ্রামের পর গ্রাম।

এদিকে এ নির্বাচনকে সামনে রেখে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন নির্বাচনে নিয়োজিত বিশেষ কমিটির এক সদস্য। রোববার বিকেলে এ বিষয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার, র‍‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‍‍্যাব এর দু’ উপ-পরিচালক,থানার ওসি,বিজিবি প্রতিনিধি ও গোয়েন্দাদের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দিদারুল আলম প্রমুখ।

সভার গুরুত্বপুর্ণ কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। তন্মধ্যে ব্যালেট বাক্স সঠিকভাবে কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছানোসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও নির্বিঘ্নে নির্বাচনের সকল কার্যক্রম সুচারুরূপে করতে এবং ঝুঁকিপুর্ণ কেন্দ্র গুলোর নিরাপত্তা প্রদান বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ