Thursday, June 13, 2024

চকরিয়া সমাজসেবা অফিসের ঘুষকান্ডের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক

কক্সবাজারের চকরিয়া সমাজসেবা কার্যালয়ে ঘুষ গ্রহণের ভিডিও চিত্রের সত্যতা যাচাইয়ে তদন্তে নেমেছে দুদক। দুদক কর্মকর্তারা এই ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছেন বলে দাবী করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে চকরিয়া সমাজসেবা গিয়ে অভিযুক্ত কর্মকর্তা কর্মচারীদের সাথে কথা বলেন দুদক কর্তারা।

চলতি মাসের শুরুর দিকে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সমাজসেবা কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে এতিমখানার অনুদানের টাকা প্রদানে ঘুষ গ্রহণের একটি ভিডিও প্রকাশ পায়। মুহুর্তে সেই ভিডিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। সংবাদও প্রকাশিত হয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে। মূলত কক্সবাজারের চকরিয়ার হারবাং মধ্যম পহরচাঁদা এতিমখানার সরকারি অনুদানের ২ লাখ টাকা উঠাতে ৮০ হাজার টাকা ঘুষ প্রদানের ভিডিও ভাইরাল হয়।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন ও অফিস সহকারী-কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক মমতাজ বেগমের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের এ অভিযোগ উঠে।

দাবিকৃত ঘুষের টাকা না দিলে অনুদান বাতিল করার হুমকিও দেয় সমাজসেবা অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা। বাধ্য হয়ে এতিমখানার পরিচালক নগদ ৪০ হাজার টাকা মমতাজকে হস্তান্তর করেন। বাকি টাকা অনুদান পেলে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। মূলত সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে। আর অভিযোগে তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

দুদকের সহকারী পরিচালক রিয়াজ উদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে চকরিয়ার সমাজসেবা কার্যালয়ের ঘটনার প্রাথমিকভাবে সত্যতা পাওয়া গেছে। এনফোর্সমেন্ট টিম অভিযুক্তদের বক্তব্য গ্রহণ করে এবং অভিযোগ সংশ্লিষ্ট রেকর্ডপত্র সংগ্রহ করে। রেকর্ডপত্র বিস্তারিত যাচাইপূর্বক পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কমিশন বরাবর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দাখিল করবে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ