Monday, March 4, 2024
spot_img

আ. লীগের স্বতন্ত্রদের দল থেকে বহিষ্কার করা হবে না: কাদের

টিটিএন ডেস্ক :

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের যারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন, তাদের কাউকে দল থেকে বহিষ্কার করা হবে না। এমনটি জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, আমরা কি দলের পক্ষ থেকে বলেছি যে, যারা স্বতন্ত্র নির্বাচন করবেন, তাদের দল থেকে বহিষ্কার করব? তাদের কেন বহিষ্কার করা হবে? এ সিদ্ধান্ত আওয়ামী লীগে এখনো হয়নি।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, কোনো প্রার্থীকে হুমকি দেওয়া হলে ব্যবস্থা নেবে নির্বাচন কমিশন। সার্বিক বিষয় পর্যবেক্ষণ করছে নির্বাচন কমিশন।

সরকার প্রশাসনিক রদবদল করছে না। কর্মকর্তাদের বদলি করছে নির্বাচন কমিশন।

এ নিয়ে আওয়ামী লীগের আপত্তি নাই।

জাতীয় পার্টির বিষয়ে তিনি বলেন, সিট (আসন) ভাগাভাগি নিয়ে আওয়ামী লীগের কাছে জাতীয় পার্টি কোনো তালিকা পাঠায়নি। সত্যিকারের বিরোধী দল হিসেবে এখন জাতীয় পার্টির নিজেদের প্রমাণ করার মোক্ষম সময়।

 

তিনি আরও বলেন, অনেকে বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতি থেকে বেরিয়ে সুস্থ রাজনীতিতে ফিরে এসেছেন। বিএনপির রাজনীতিতে জড়িয়ে অনেকেই নিজের জীবন নষ্ট করতে চান না। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ। আগামীতে বিএনপির আরও অনেকে স্বাভাবিক রাজনীতির ধারায় আসবেন।

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, চোরাগোপ্তা হামলার জন্য বিএনপি নেতাকর্মী পাচ্ছে না। তাই ভাড়া করা টোকাই দিয়ে তারা হামলা করছে। তাদের দিয়ে বোমা হামলা করছে, পেট্রোল বোমা মারছে, এসব অপকর্ম করছে।

 

তিনি বলেন, জনসমর্থনের অভাবে বিএনপির আন্দোলন মুখ থুবড়ে পড়েছে। সে কারণে তারা সন্ত্রাস, অগ্নিসন্ত্রাস, হিংসা, চোরাগোপ্তা হামলা, নাশকতা করছে। স্বাভাবিক পথ থেকে বিচ্যুত হয়ে তারা রাজনীতিকে সন্ত্রাসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। প্রতিদিন গাড়ি পোড়াচ্ছে। তারা জনগণকে শত্রু ভাবে। বেলাল হোসেনের মতো একজন নিরীহ বাস হেলপারকে ৮০ শতাংশ পুড়িয়ে দিয়েছে।

 

নির্বাচন এলে ষড়যন্ত্র হয় উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন এলেই কিছু মানুষ বা গোষ্ঠী ষড়যন্ত্র করে। জনসমর্থহীন এসব গোষ্ঠী নির্বাচনে হেরে যাবে। নির্বাচনে ভরাডুবির শঙ্কা তাদের। সব সময় তারা পেছনের দরজা খোলা রাখে। পেছনের দরজা দিয়ে তারা ক্ষমতায় আসার ষড়যন্ত্র করে। রাজনৈতিক আন্দোলনে ব্যর্থ বিএনপি নির্বাচনে আসতে ভয় পায়। তারা পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসার ষড়যন্ত্র করছে।

 

প্রেস ব্রিফিংয়ে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, সুজিত রায় নন্দী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা, উপ-দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page