Thursday, February 29, 2024
spot_img

ছুটির দিনে ঘূর্ণিঝড় ‘মিধিলি’র হানা, পর্যটক শূণ্য মেরিনড্রাইভ

শামীমুল ইসলাম ফয়সাল :

ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব পড়েছে মেরিনড্রাইভ সংলগ্ন বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে।দুপুর ১ টার থেকে হটাৎ করেই বেড়ে যায় বাতাসের গতিবেগ, সাথে ভারি বৃষ্টি। মেরিনড্রাইভের হিমছড়ি, প্যারাসাইলিং পয়েন্ট, ফানফেস্ট পয়েন্ট ও ইনানী সমুদ্র সৈকতে একেবারে পর্যটক শূণ্য, একই চিত্র পাটুয়ারটেক পাথুরে বীচেও, যেখানে ছুটির দিনগুলোতে পর্যটকের উপচে পড়া ভীড় থাকলেও আজকে ছুটির দিনে দেখা নেই পর্যটকের।কক্সবাজারের বিভিন্ন জায়গায় সকাল থেকেই ভারি বৃষ্টি হচ্ছে, ফলে অনেকেই ছাদখোলা জিপে করে আর কক্সবাজার শহর থেকে মেরিনড্রাইভের দিকে আসতে পারেনি।
এদিকে কিছু পর্যটক মোটরসাইকেল আর ইজিবাইক (টমটম) ভাড়া করে মেরিনড্রাইভে ভ্রমণে বের হলেও বৃষ্টি আর বাতাসের অবস্থা দেখে তাঁরাও দ্রুত কক্সবাজারের দিকে রওনা দিচ্ছেন।
ব্যাংক কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম বৃহস্পতিবার সকালেই কক্সবাজারে এসে পৌছান ঢাকা থেকে,
থাকেন ঢাকার মোহাম্মদপুরে, স্বপরিবারেই কক্সবাজানে ভ্রমণে এসেছেন।তিনি জানান, গতকাল সারাদিন কক্সবাজার এবং দরিয়া নগরসহ আশেপাশের সমুদ্র সৈকতে ঘুরেছেন।
আজকে মেরিনড্রাইভের বিভিন্ন পর্যটনস্পট ঘুরে রাতেই চলে যাওয়ার কথা তাঁদের, তাই হোটেল থেকে সকাল ৮ টার দিকে বের হয়ে কলাতলি থেকে ইজিবাইক ভাড়া করে মেরিনড্রাইভের দিকে রওনা দেন তাঁরা, কিন্তু এরপর থেকেই বৃষ্টি আর বাতাসের কারণে সমুদ্র সৈকতে নামতে না পেরে তাঁরা আবারো কক্সবাজারের দিকে রওনা হয়েছেন।
পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীর বলছেন, চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতেও ছুটিরদিনগুলোতে বিশেষকরে শুক্রবার ও শনিবারে কমবেশি পর্যটকের আনাগোনা থাকে, কিন্তু আজকে সকাল থেকেই সুমদ্র সৈকত এবং মেরিনড্রাইভে পর্যটকশূণ্য।
এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সকাল থেকেই দেখা নেই বিদুৎতের, এখনো পর্যন্ত কোথাও গাছ বা বিদুৎতের খুঁটি ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার খবর না থাকলেও বিদুৎ নেই সকাল থেকে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page