Sunday, May 26, 2024

টেকনাফে মানবপাচারকারীর গুলিতে দুই সহোদর গুরুতর আহত

নোমান অরুপ :

কক্সবাজারের টেকনাফ বাহারছড়া ইউপির ৮নং ওয়ার্ড কচ্ছপিয়া এলাকায় মানবপাচারকারীদের হামলায় হারুন রশিদ (৩৭), হুমায়ুন রশিদ (২৩) নামের দুই সহোদর গুরুতর আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

এ ঘটনায় আহতদের পিতা ফরিদ আহাম্মদ বাদী হয়ে টেকনাফ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার (৬ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮ টার দিকে আমার সৌদি প্রবাসী ছেলে হারুন রশিদ (৩৭) ও হুমায়ূন রশিদ (২৩) উভয়ে শখ করে মাছ আহরণ করার জন্য গ্রামের পশ্চিমে সমুদ্রে যায়, এমতাবস্থায় কেফায়েত উল্লাহ প্ৰকাশ কেফাইয়া, মোঃ রাসেল, মোঃ জুবায়ের, মোঃ ইউনুছ, মোঃ জসিম, আয়াত উল্লাহ, মোঃ রফিক, আব্দুল মালেক, মোঃ হারুন, নুর হোছেন, মোঃ তৈয়ুব, সহ সংঘবদ্ধ চিহ্নিত মানবপাচারকারীরা পূর্বে জমায়েতকৃত লোকজন মালয়েশিয়া পাচার করার উদ্দেশ্যে আনিত ইঞ্জিন চালিত বোটে লোকজন উঠাচ্ছিলো, তখন আমার দুই ছেলে দেখে ফেলে এবং তাদের হাতে থাকা টর্চ লাইট দ্বারা আলোকিত করলে সংঘবদ্ধ দলটি আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে হত্যা উদ্দেশ্যে আমার দুই ছেলেকে গুলি করে। উক্ত গুলি হারুন রশিদের ডান পায়ের হাটুর নিচে লেগে হাড় ভেঙে যায় এবং হুমায়ুন রশিদের বাম পাঁজরে, হাতে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে গুলিবিদ্ধ হয় এবং দু’জনে গুরুতর রক্তাত্ত জখম হয়। পরে তাদের হাতে থাকা লাঠি ও লোহার রড দিয়ে হাতে, পিঠে, পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত করে। এসময় শোর চিৎকার শুরু হলে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাইট দ্বারা আলোকিত করলে তারা দিক-বেদিক দৌঁড়ে পালিয়ে যায় এবং তাদেরকে চিনতে সক্ষম হয়। উপস্থিত স্থানীয়দের সহযোগিতায় আহতদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেে নিয়ে আসলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক ককক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে এবং সেখানে হুমায়ুন রশিদকে ভর্তি করানো হয়, পরে হারুন রশিদের অবস্থা আরো অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

দায়ের করা অভিযোগে পত্রে উল্লেখ করে তিনি আরো জানান, সংঘবদ্ধ চক্রটি মানবপাচারে সক্রিয়। তারা সকলে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন এলাকা হতে লোকজন নিয়ে এসে গ্রামের পূর্বে পাহাড়ে একত্রিত করে পরে বোট যোগে মালয়েশিয়া প্রেরণ করে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page