Friday, May 17, 2024

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরএসও’র সদস্যকে নৃশংসভাবে হত্যা করলো আরসা

শামীমুল ইসলাম ফয়সাল

রোববার সকালে এক রোহিঙ্গাকে জবাই করে হত্যা করার পর ১২ ঘন্টা না পেরোতেই আবারো একইদিন বিকেলে আরও একজনকে জবাই করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। নিহত ব্যক্তির নাম জাফর আহমেদ (৩৭), সে রঞ্জু মিয়ার ছেলে। তিনি কুতুপালং ক্যাম্প-৪ এর জি/০৯ ব্লকের বাসিন্দা।

রোববার (৫ মে) সন্ধায় উখিয়ার ক্যাম্প-২০ এক্সটেনশনের এস-৪ ব্লকের পাশে কাঁটাতারের বাইরে একটি পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে তাঁকে হত্যা করা হয়।
বিষয়টি নিশ্চিত করে উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শামীম হোসেন জানান, নিহত ব্যক্তি ক্যাম্পে রোহিঙ্গা সলিডারিটি অর্গানাইজেশন (আরএসও) এর সক্রিয় সদস্য হওয়ায় তাঁকে আরসার সদস্যরা পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে গুলি ও জবাই করে হত্যা করে।

তিনি আরও বলেন, আরসার ১০/১২ জনের একটি দল তাঁকে ক্যাম্পের বাইরে কাটাতারের পাশের একটি গহীন পাহাড়ে নিয়ে গিয়ে গলায় গুলি করে সন্ত্রাসীরা, পরে মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে নৃশংসভাবে হত্যা করে পালিয়ে যায় তারা।সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তার করতে ক্যাম্পের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানান ওসি।

এদিকে ক্যাম্প-৪ এর একজন মাঝি নাম প্রকাশ না করার শর্তে টিটিএন- কে জানান, নিহত জাফর আহমদেকে আরসার সন্ত্রাসীরা দীর্ঘদিন ধরে হত্যা করার পরিকল্পনা নিচ্ছিলো, সে খবর তাঁকেও বিভিন্নভাবে জানানো হয়েছিলো।

ক্যাম্প-৪ এর এ মাঝি আরও জানান, জাফর আহমদে ক্যাম্প-৪ এর আরএসওর সক্রিয় সদস্য হিসেবে কাজ করতেন। সম্প্রতি ক্যাম্প-৪ থেকে আরসার সদস্যরা অস্ত্রও গোলাবারুদসহ এপিবিএনের হাতে গ্রেপ্তারের পর থেকে তাঁরা আরও বেশি বেপরোয়া হয়ে যায়।

এছাড়াও একইদিন ভোরে ক্যাম্প-১৯ এর ডি-১৪ ব্লকের নুর সালামের পুত্র নুর কালামকে (২৯) জবাই করে হত্যা করা হয়। এ নিয়ে একদিনে দুইজন রোহিঙ্গাকে জবাই করে হত্যা করলো সন্ত্রাসীরা।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page