Wednesday, May 29, 2024

কেএনএফের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার বান্দরবানে রুমা ছাত্রলীগের সভাপতি’সহ ৭ জন জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক

বান্দরবানের রুমায় সোনালী ব্যাংক ডাকাতি, হামলা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় কেএনএফের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার করা রুমা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি’সহ আরও ৭ জনকে আদালতের নির্দেশে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার(২৩ এপ্রিল) দুপুরে পুলিশ আসামীদের বান্দরবান চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এএসএম এমরানের আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জেলে পাঠানো নির্দেশ দেন।

আসামীরা হলেন- রুমা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ভান নুন নোয়াম (৩৩), লাল নুন নোয়াম (৬৮), লাল দাভিদ বম (৪২), চমলিয়ান বম (৫৬), লাল পেক লিয়ান (৩২), লাল মিন বম (৫৬) ভান বিয়াক লিয়ান বম (২৩)। এরা সবাই রুমা উপজেলার মুনলাই পাড়ার বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বান্দরবান চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের কোর্টপুলিশ পরিদর্শক ফজলুল হক জানান, রুমায় ব্যাংক ডাকাতি, হামলা আইনশৃংখলা বাহিনীর ১৪টি অস্ত্র লুটের মামলায় গ্রেফতারকৃত ৭ জনকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত অভিযোগ শোনে আসামীদের কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন।

যৌথ বাহিনী জানায়, রুমা ও থানচিতে পাহাড়ের সশস্ত্র সংগঠন কুকি চিন ন্যাসনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) তান্ডব চালিয়ে ব্যাংক ডাকাতি, মসজিদে হামলা, ব্যাংক ম্যানেজারকে অপহরণ, আইনশৃংখলা বাহিনীর ১৪টি অস্ত্র লুট ঘটনায় রাষ্ট্রবিরোধী কর্মকান্ড বন্ধে সাড়াশি অভিযানে চালাচ্ছে সেনাবাহিনী, র‍‍্যাব, আর্মস পুলিশ’সহ যৌথ বাহিনী। অভিযানে সোমবার রুমা উপজেলার দূর্গম মুনলাই পাড়া এলাকা থেকে কেএনএফ’র সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রুমা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ভান নুন নোয়াম’সহ ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

প্রসঙ্গত: রুমা-থানচিতে ব্যাংক ডাকাতি মসজিদে হামলা, টাকা-অস্ত্র লুট ও ব্যংক ম্যানেজারকে অপহরণের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত এ পর্যন্ত ৭৮ জনকে পুলিশ আদালতের নির্দেশনায় বান্দরবান কারাগারে পাঠিয়েছে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page