Friday, April 19, 2024

সীমান্ত সংঘর্ষে ১৪০ কোটি টাকা রাজস্ব কমেছে টেকনাফ স্থল বন্দরে

নোমান অরুপ

সীমান্তের ওপারে মিয়ানমারে চলছে সংঘাত। যার কারণে বছরে হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আদায়কারী টেকনাফ স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানিতে বড় ধরনের ধস নেমেছে। এতে করে বন্দর সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা ও শ্রমিকরা বিপাকে পড়েছে। আর বন্দরের জাহাজাটে বিরাজ করছে শুন্যতা।

ব্যবসায়ীরা জানান, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের সংঘর্ষের কারণে পণ্যবাহী জাহাজ আসা যাওয়া নেই বললেই চলে। যার কারণে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন তারা।

শ্রমিকরা জানান, মালামাল কম আসায় সংসার চালাতে কষ্ট হচ্ছে, অন্যদিকে দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতি। সবমিলিয়ে বেশ দুর্দশার দিন যাচ্ছে তাদের।

টেকনাফ স্থল বন্দরের রাজস্ব কর্মকর্তা বি.এম. আব্দুল্লাহ-আল-মাসুম জানান, গত বছরের তুলনায় এ বছর ১৪০ কোটি টাকা রাজস্ব ও ৮৫ হাজার মেট্রিকটন মালামাল কম এসেছে।

এ কর্মকর্তা আরও বলেন, আগে সহজে ট্রলারগুলো আসতে পারলেও এখন ১৫ ঘন্টা পাড়ি দিয়ে আসতে হয়। তাই রাজস্ব আদায় তুলনামূলক কম হচ্ছে।

টেকনাফ স্থল বন্দর সুত্রে জানা যায়, গত বছরে ২ হাজার পাঁচশোর উপরে ট্রলার আসে। কিন্তু চলিত বছরের জানুয়ারিতে ৯৯ টি, ফেব্রুয়ারি মাসে ২২৫ টি, মার্চের ৩০ তারিখ পর্যন্ত ১৫৫ টি ট্রলার আসে বন্দরে। এরমধ্যে শুটকি, নারিকেল, মাছ, আচার, সুপারি, কাঠ, প্রসাধনী, আদা আমদানি হয় বলে জানা গেছে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page