Wednesday, April 10, 2024

এবার থানচিতে সোনালী ও কৃষি ব্যাংক লুট

বিশেষ প্রতিবেদক

ফের বান্দরবানের থানচি উপজেলায় সোনালী ও কৃষি দুটি ব্যাংক লুটের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৩ এপ্রিল) দুপুর ১২ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানিয়েছে, থানচি সোনালী ব্যাংক শাখা থেকে ১৫ লাখ টাকা এবং কৃষি ব্যাংক শাখা ২ লাখ ৪৫ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে গেছে। এসময় ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছ থেকে ১৫টি মোবাইলও ছিনিয়ে নিয়েছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।

এর আগে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) রাতে রুমা উপজেলায় সোনালী ব্যাংকে হামলা ও এক ব্যবস্থাপককে অপহরণের ঘটনা ঘটে। পাহাড়ের সশস্ত্র বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন কুকি চিন ন্যাশনাল ফ্রন্ট (কেএনএফ) এই লুটের সাথে জড়িত বলছেন সংশ্লিষ্টরা।

থানচি থেকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক ট্যুর গাইড মুঠোফোনে জানান, দুপুর ১২ টার দিকে থানচি বাজারসহ আশপাশের এলাকাগুলো ঘেরাও করে ফাঁকা গুলি ছুঁড়তে থাকে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। এসময় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে চারদিকে। এরা কেএনএফ এর সদস্য বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, পোষাক পরিহিত সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ৩০/৩৫ জনের মতো ছিলো। এসময় তারা বাজারের লোকজনের মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। পরে সোনালী ব্যাংক ও কৃষি ব্যাংকে হানা দেয়।

খবর পেয়ে সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ’সহ উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ঘটনাস্থলসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

থানচি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ মামুন জানান, ঘটনার পরও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। নিরাপত্তা বিবোচনায় ব্যাংকিং কার্যত্রুম সাময়িক বন্ধ রাখা হয়েছে। ঘটনার সাথে কারা জড়িত বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ইতিমধ্যে সেনাবাহিনী’সহ যৌথ বাহিনী অভিযানে নেমেছে।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: জসিম উদ্দিন জানান, ব্যাংক লুটের ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। লুটকারী সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের ধরতে যৌথ বাহিনী অভিযানে নেমেছে। থানচি বাজারসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page