Wednesday, May 22, 2024

নাইক্ষ্যংছড়িতে সরকারি পাহাড় কেটে বাড়ি বানাচ্ছেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা সদরের পূর্ব বিছামারা এলাকায় প্রকাশ্যে একাধিক পাহাড় কাটা হচ্ছে। এই পাহাড়গুলো সরকারি খাস খতিয়ানের অন্তর্ভুক্ত । গত এক মাস ধরে এই পাহাড়গুলো কাটা হলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন ব্যবস্থাই নেয়া হয়নি।

অভিযোগ রয়েছে খোদ নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ জাকারিয়া পাহাড়কাটাস্থলে গিয়ে ব্যবস্থা না নিয়ে ফিরে এসেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর ইউনিয়নের পূর্ব বিছামারা গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বিশাল একটি সরকারি পাহাড় সাবাড় করা হয়েছে। পাহাড়টি কেটেছে স্থানীয় আমির আলির ছেলে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ হোসেন। জাহিদ হোসেন বলেন, ‘বাড়ি তৈরীর উদ্দেশ্যে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে পাহাড় কাটা হচ্ছে। নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ জাকারিয়া স্যার রাতে এসে দেখে গেছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু তাহের কোম্পানি আমাকে ইউএনও স্যারের সঙ্গে ট্যাগ করে দিয়েছে। মাটিগুলো আবু তাহের কোম্পানি নিয়ে গেছেন ইটভাটায়।’

আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদ হোসেনের পাশাপাশি পূর্ব বিছামারায় পাহাড় কাটছে আবদুর রহমান, মোহাম্মদ ইকবাল, অলি উল্লাহসহ অনেকে। এসব মাটি ইটভাটার পাশাপাশি যাচ্ছে ধানিজমি ভরাটের মতো কর্মকান্ডে।

বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী, সরকারি-বেসরকারি ও ব্যক্তিমালিকানাধীন কাজে পাহাড়-টিলা কাটা বা অন্য কোনো উপায়ে ভূমিরূপ পরিবর্তন করা যাবে না উল্লেখ থাকলেও নাইক্ষ্যংছড়ি সদরে কাটা হচ্ছে সরকারি খাস পাহাড়।

অভিযোগ প্রসঙ্গে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেন, ‘অনেকে অনেক কথা বলবে, যারা পাহাড় কেটেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page