Wednesday, May 22, 2024

সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা

আব্দুর রশিদ মানিক

মাহে রমজান এবং পর্যটন মৌসুম শেষের দিকে চলে আসায় সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন নৌরুটে এমভি বার আউলিয়া ও কর্ণফুলি এক্সপেস নামে দুটি জাহাজ চলাচল করতো। যা বন্ধ ঘোষণা করেছে জাহাজ দুটির কর্তৃপক্ষ।

তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ ব্যাপারে কোন নির্দেশনা দেওয়া হয়নি।

সোমবার (১১ মার্চ) থেকে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকবে জানিয়ে কর্ণফুলি ক্রুজলাইনের এডমিন মো. নুরুল আলম বলেন, “ইনানী জেটি সংস্থাপন কাজ এবং এপ্রিল মাসের আবহাওয়া ও কাল বৈশাখি ঝড়ের কথা বিবেচনা করে সেন্টমার্টিনে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।”

নুরুল আলম জানান, “মূলত চলতি মৌসুমে জাহাজ চলাচলের ইতি টানা হয়েছে। আশা করি, আগামী পর্যটন মৌসুম অর্থাৎ সেপ্টেম্বর মাস থেকে পর্যটকবাহী সব জাহাজ কক্সবাজার থেকে সেন্টমার্টিন পুনরায় চলাচল করবে।’

জাহাজ মালিকদের সংগঠন সি ক্রুজ অপারেটরস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (স্কুয়াব) এবং ট্যুর অপারেটর্স এসোসিয়েশন অব কক্সবাজার (টুয়াক) সভাপতি তোফায়েল আহমেদ বলেন, “রমজান এবং পর্যটন মৌসুম শেষের দিকে আসায় কক্সবাজার-সেন্টমার্টিন নৌরুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তবে এর আগে থেকেই টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ ছিলো।”

এদিকে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) ইয়ামিন হোসেন বলেন, “কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। জাহাজ মালিকরা তাদের পর্যটক যাওয়া-আসার উপরে সিদ্ধান্ত নিতে পারে। তবে আমাদের কোন সিদ্ধান্ত নেই।”

০৯ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের অভ্যন্তরে বাংলাদেশ সীমান্তের কাছাকাছি গ্রামগুলোতে চলমান সংঘাতের কারণে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী জাহাজ চলাচল বন্ধ করেছিল প্রশাসন। ফলে পর্যটকদের চাহিদা বিবেচনা করে কক্সবাজার থেকে দুটি পর্যটক জাহাজ নিয়মিত চলাচল করছিলো।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page