Thursday, May 23, 2024

চট্টগ্রামে জয় বাংলা কনসার্ট আজ: জেলা প্রশাসক ও সিএমপির কড়া নির্দেশনা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের স্মরণে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘জয় বাংলা কনসার্ট’। ইতিমধ্যে এ আয়োজনের সকল প্রস্তুতি শেষ করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এ কনসার্ট।

এবারের কনসার্টে আর্টসেল, নেমেসিস, চিরকুটসহ ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভিন্ন জনপ্রিয় ব্যান্ড দল সঙ্গীত পরিবেশন করবে। এছাড়া জনপ্রিয় শিল্পীরাও কনসার্টে গান করবেন। ২০১৫ সাল থেকে ঢাকার আর্মি স্টেডিয়ামে এই কনসার্ট আয়োজন করে আসছিল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এর তারুণ্যের প্লাটফর্ম ইয়াং বাংলা। করোনা মহামারির কারণে ২০২১ ও ২২ সালে কনসার্ট হয়নি। এবারই প্রথমবারের মতো চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে এই কনসার্ট আয়োজন করা হয়েছে।

জয় বাংলা কনসার্টের প্রস্তুতি দেখতে বুধবার বিকালে নগরীর এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের অনুষ্ঠানস্থল পরিদর্শন করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী এবং কনসার্টের আয়োজক প্রতিষ্ঠান সিআরআই এর ট্রাস্টি নসরুল হামিদ।

এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, এই কনসার্ট চট্টগ্রামের তরুণ সমাজকে স্বাধীনতার চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে সহায়তা করবে।

জেলা প্রশাসকের নির্দেশেনা

কনসার্ট উপভোগ করার জন্য যেসব নিয়ম মানতে হবে। এর মধ্যে আছে মূল ফটকে টিকিটের প্রাথমিক স্ক্রিনিং হবে, তারপর স্টেডিয়ামের নম্বরযুক্ত গেটে স্ক্যান করা হবে। বারকোড স্ক্যানার দ্বারা পাঠযোগ্য হতে হবে। একটি পঠনযোগ্য বারকোড ছাড়া ভেন্যুতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। গেট দুপুর ১২টায়  খুলবে। একবার অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করলে পুনরায় প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। ১২  বছরের কম বয়সী শিশুদের অনুষ্ঠানে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। বাইরের কোনও খাবার বা পানীয় অনুমোদিত নয়। অনুষ্ঠানস্থলে উপযুক্ত মূল্যে খাবার ও পানি পাওয়া যাবে। অনুষ্ঠানস্থলের ভেতরে কোনও প্রকার তামাক বা তামাকজাত দ্রব্য প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। ধারণক্ষমতা পূর্ণ হলে আয়োজকরা যেকোনো মুহূর্তে প্রবেশ বন্ধ করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। নিরাপত্তা হুমকি হিসেবে বিবেচিত হলে আয়োজকরা প্রবেশ প্রত্যাখ্যান করার বা প্রাঙ্গণ থেকে কাউকে সরিয়ে দেওয়ার অধিকার সংরক্ষণ করেন। আয়োজকরা যেকোনো সময়ে নিরাপত্তা তল্লাশি চালানোর অধিকার সংরক্ষণ করে এবং স্রোতাদের বিপদ বা বিরক্তির কারণ হতে পারে, এমন যেকোনো বিষয় বাজেয়াপ্ত করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। অনুষ্ঠানস্থলে সিসিটিভি ও ক্যামেরা চালু থাকবে। টিকিটধারী স্রোতারা চিত্রগ্রহণ এবং ভিডিও রেকর্ডিং করলে সেখানে কর্তৃপক্ষের কোনও বিধিনিষেধ থাকবে না। ফোনের ক্যামেরা ব্যতীত অন্য যেকোনো ক্যামেরা কঠোরভাবে নিষিদ্ধ। আয়োজকরা এই জাতীয় আইটেম বাজেয়াপ্ত করার অধিকার সংরক্ষণ করেন। যেমন মোবাইল ফোন চার্জার, হেডফোন, ব্লুটুথ, স্পিকার, পাওয়ার ব্যাংক। নিরাপত্তার স্বার্থে অনুষ্ঠানস্থলের ভেতরে ইলেকট্রনিক সিগারেট, ভ্যাপ এবং এই ধরনের কোনও বৈদ্যুতিক যন্ত্রের অনুমতি দেওয়া হবে না। অনুষ্ঠানস্থলের ভেতরে কোনও ধরনের ব্যাগ রাখা যাবে না, ব্যাগ বহনকারী ব্যক্তিদের অবিলম্বে প্রাঙ্গণ ছেড়ে যেতে বলা হবে। নারীদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে ১০ ইঞ্চি বাই ৬ ইঞ্চির চেয়ে বড় ব্যাগ না আনতে। এর চেয়ে বড় কোনও ব্যাগ ভেতরে প্রবেশ  করতে দেওয়া হবে না।

নগর পুলিশের ট্রাফিক নির্দেশনা

অনুষ্ঠান সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে উদযাপনের লক্ষ্যে সিএমপির ট্রাফিক-দক্ষিণ বিভাগ কর্তৃক বিশেষ ট্রাফিক পুলিশিং ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় এসব নির্দেশনা মানতে হবে।

স্টেডিয়ামের মূল গেট থেকে ভেতরে জিমনেসিয়ামের দিকে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে। দর্শক ও স্রোতারা পায়ে হেঁটে প্রবেশ করবেন। ব্যক্তিগত গাড়িতে আগতদের স্টেডিয়ামের যেকোনো প্রবেশ গেটে গাড়ি থামিয়ে অন্য পয়েন্ট দিয়ে বের হয়ে যেতে হবে। গুরুত্বপূর্ণ অতিথি এবং বিশেষ স্টিকারযুক্ত গাড়ি জিমনেসিয়ামের দক্ষিণ পাশের ভিআইপি গেট দিয়ে প্রবেশ করে অতিথি নামানোর পর জিমনেসিয়াম মাঠে পার্কিং করবে। স্টেজ পারফরম্যান্সে অংশগ্রহণকারী সব আর্টিস্ট, আমন্ত্রিত ব্যান্ড সমূহের সদস্যদের গাড়ি স্টেজের পেছনে মহানগর ক্রীড়া সংস্থা ও বিদ্যুৎ অফিস সংলগ্ন গেট ড্রপিং পয়েন্ট হিসেবে ব্যবহার করবেন। অন্যান্য দর্শক, অতিথি ও সরকারি-বেসরকারি দফতরসমূহের গাড়ি এবং মিডিয়ার গাড়ি নিজ নিজ সুবিধা অনুযায়ী প্রবেশ গেট সমূহের সামনের রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদ মাঠ ও সিআরবির ভেতরে পার্কিং করবে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page