Friday, April 19, 2024

সীমান্তের স্থানান্তরিত কেন্দ্রে ৪০৩ জন অংশ নিলো এসএসসি পরীক্ষায়

শামীমুল ইসলাম ফয়সাল

বাংলাদেশ সীমান্তের ওপারে রাখাইনে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বিদ্রোহী গোষ্ঠী আরাকান আর্মির সাথে চলমান সংঘর্ষের প্রভাবে বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী ঘুমধুম উচ্চবিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্র সরিয়ে নিয়ে ১ নম্বর উত্তর ঘুমধুম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ ফ্রেব্রুয়ারী) থেকে শুরু হওয়া এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা যথাসময় সকাল ১০ টায় শুরু হয়ে শেষ হয়েছে দুপুর ১ টায়। প্রথম দিনে বাংলা ১ম পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত তিন ঘন্টার পরীক্ষা কোনো ধরনের সমস্যা ছাড়াই শেষ হয় পরীক্ষা। ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব খাইরুল বশর জানান, ‘নিয়মিত ও অনিয়মিত মিলে মোট পরীক্ষার্থী ৫০২ জন। প্রথমদিন উত্তর ঘুমধুম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিনটি ভবনে মোট ৪০৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছে। এর মধ্যে এসএসসি সাধারণ শাখায় পরীক্ষার্থী ছিলো ৩৬৪ জন এবং কারিগরি বিভাগের পরীক্ষার্থী ছিলো ৩৯ জন। প্রথমদিন অনুপস্থিত ছিলেন ২ পরীক্ষার্থী। তাঁরা দুইজনেই সাধারণ বিভাগের।’বাকি ৯৭ জন পরিক্ষার্থী অনিয়মিত, যারা গত বছরের পরিক্ষায় বিভিন্ন বিষয়ে খারাপ করেছিলেন, তাঁরাও এবার অংশ নিবেন পরিক্ষায়।

কেন্দ্র সচিব আরও জানান, ‘প্রথম দিন বাংলা ১ম পত্রের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়।’

এদিকে পরীক্ষার্থীরা জানায়, ‘গত ১৫ দিন ধরে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে সংঘর্ষের কারণে তাঁরা বাড়িতেই থাকতে পারেননি। আত্বীয়স্বজনের বাসায় গিয়ে থেকেছেন এবং শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি ভালোভাবে নিতে পারেনি।’

তুমব্রুর উত্তর পাড়ার সাইদুল ইসলাম জানায়, ‘তাঁর বাসা সীমান্তের কাছাকাছি হওয়াতে তাঁর পরিবার এখন তাঁর নানার বাড়িতেই থাকছেন। নানার বাসায় থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। গোলাগুলির কারণে পড়ায় মনোযোগ দিতে না পারায় বাকি পরীক্ষাগুলো নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে আছেন বলে জানায় এ পরীক্ষার্থী।’

এদিকে কেন্দ্রের বাইরে অবস্থানরত অনেক অভিভাবকের সাথে কথা বলে জানা যায়, ‘তাঁরা নিজেরাও দুঃশ্চিন্তায় আছেন। কারণ শেষ মুহূ্র্তে প্রস্তুতি নেওয়ার সময় মিয়ানমারে সংঘর্ষ শুরু হলে বাড়িতেই থাকতে পারেননি তাঁরা। ফলে দু’টানার মধ্যে সময় কেটে যায়। সীমান্ত পরিস্থিতি এখন কিছুটা শান্ত হলেও তাঁরা তাঁদের সন্তানদের কথা চিন্তা করে কেউ ভাড়া বাসায় আর কেউ আত্মীয় স্বজনের বাসায় অবস্থান করছেন। ফলে পরিক্ষার যথাযথ প্রস্তুতি নেওয়া সম্ভব হয়নি অনেক পরীক্ষার্থীদের।’

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page