Thursday, May 23, 2024

বসন্ত ও ভালোবাসার উত্তাপ এখন কক্সবাজারের ফুল বাজারে

শাহেদ হোছাইন মুবিন :
রাত পোহালেই বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। সঙ্গে বসন্ত যোগ হওয়ায় দেশের বিভিন্ন স্থানের মতো কক্সবাজারেও ফুলের দোকানে পসরা সাজিয়ে বসেছেন দোকানিরা। ভালোবাসা দিবসকে সামনে রেখে গুমগাছতলা, শহীদ স্মরণীসহ শহরের বেশ কিছু জায়গায় ফুল বিক্রি করছেন ফুল ব্যবসায়ীরা।

ভালোবাসা দিবসের আগের দিন মঙ্গলবার রাত থেকেই ফুলের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় দেখা গেছে। ভালোবাসার মানুষের জন্য ফুল কিনছেন তারা। সব বয়সী মানুষকে ফুল কিনতে দেখা গেলেও তরুণ-তরুণীদের আধিক্যই বেশি। হরেক রকমের গোলাপ, রজনীগন্ধা, বেলিসহ নানা ধরণের ফুল বিক্রি হচ্ছে দোকানগুলোতে। তরুণীদের মাথার চুলে দেওয়ার জন্য বাহারি রকমের ফুলের বেড়ি বানিয়ে বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

প্রতিটি গোলাপ প্রকার ভেদে ৩০ টাকা থেকে ৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা গত সপ্তাহে যার দাম ছিল প্রতিটি ১০ টাকা। আর ফুলের মাথার বেড়ি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকার মধ্যে এবং স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে রজনীগন্ধা, গ্লাডিওলাস, জারবেরাসহ প্রতিটি ফুলের দাম প্রায় দ্বিগুণ।

ফুল কিনতে আসা সুহেনা জানান, কালকে ভালোবাসা দিবস। তাই ফুল কিনতে আসলাম। ফুলের বেড়ি মাথায় দিয়ে আমরা কাল ঘুরতে যাব।

ফুল কিনতে আসা কলেজছাত্রী কহিনুর জানান, ভালোবাসা দিবসে ফুল কেনা একটি ট্রেডিশন হয়ে গেছে। তাই আমরা ফুল কিনতে এসেছি। অন্যদিনের তুলনায় দাম বেশি তারপরও কিনছি। বিভিন্ন অকেশনে দাম বাড়বে এটাই স্বাভাবিক।’

মানিক চাকমা নামের এক ক্রেতা বলেন, ‘ভালোবাসা দিবস ও বাড়িতে বিয়ে উপলক্ষে ফুল কিনতে এসেছিলাম। আগে ফুলের যে দাম ছিল, তার চেয়ে দুই থেকে তিনগুণ বেশি দাম চাচ্ছেন দোকানদাররা। সেজন্য একটু হিমশিম খাচ্ছি, ফুল কীভাবে কিনব। কারণ, যে বাজেট ছিল, তাতে কুলাচ্ছে না। তারপরও কিছু করার নেই। অল্প হলেও ফুল নিতে হবে।

পুষ্প অরণ্যের ফুল ব্যবসায়ী আনোয়ার জানান, ফুল হলো কাঁচামাল। তাই ফুল ব্যবসায় যেমন লাভ আসে তেমন লোকসানও আছে৷ তবে বিকেল থেকে রাতে বিক্রি বেড়েছে। আশা করি কালকে আরও বেশি বিক্রি হবে। দাম বেশি রাখায় বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি বলেন, পরিবহন খরচ ও ভালোবাসা দিবসের জন্য আমাদের বেশি দামে ফুল কিনতে হয়েছে। তাই আমরাও ক্রেতাদের কাছে একটু বেশি দামে বিক্রি করছি।

রোজ গার্ডেন এর ফুল বিক্রেতা বক্কর সিং বলেন, হঠাৎ করেই ফুলের চাহিদা বেড়ে গেছে। বিভিন্ন বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় এবং নতুন শিক্ষার্থীদের বরণ অনুষ্ঠানে প্রচুর ফুলের চাহিদা। এ ছাড়াও বসন্ত বরণ, ভালোবাসা দিবস হওয়ায় দাম বেড়েছে । কয়েকদিন আগেও গোলাপ ১০ টাকা করে বিক্রি করেছি। এখন বেশি দামে কিনতে হচ্ছে, তাই বিক্রিও করছি বেশি দামে। ফেব্রুয়ারি মাসে ফুলের দাম একটু বেশিই থাকে। এমন দাম চলবে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। তারপর আবার কমবে।

আবদুর রহিম পুষ্প বিতানের ব্যবসায়ী বলেন, ফুল বিক্রি ভালোই হচ্ছে। এবছর বসন্ত উৎসব, ভালোবাসা দিবস ও সরস্বতী পূজা একদিনে হওয়ায় ফুল বিক্রির পরিমাণ অন্যান্য বছরের চেয়ে আরও বেশি হচ্ছে। ফুলের ব্যবসা করার মাস হচ্ছে ফেব্রুয়ারি। এসময়ে চাহিদাও থাকে বেশি।

এদিকে ভালোবাসা দিবস ও বসন্ত ঘিরে সমুদ্র শহরজুড়ে বইছে উৎসবের আমেজ। বসন্ত উৎসব, বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে প্রত্যেক দোকানিরা প্রায় লাখ টাকার বেশি ফুল বিক্রির প্রত্যাশা করছেন।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page