Sunday, February 25, 2024

‘হাইত ন পারির হম্বল হন্তু কিনিয়ুম’

নিজস্ব প্রতিবেদক

“অ-বাপ, এবার যে শীত পরের, বারে হামত যাই ন পারির, ঘরর বেরার ফাকত্তি হু হু ঠান্ডা বাতাস আইয়ে, রাতিয়া পাতল ক্যাতা দি শীত ন মানে, গুম যাইত ন পারি, হাইত ন পারির হম্বল হন্তু কিনিয়ুম?

কথা গুলো বলছিলেন কক্সবাজার নাজিরারটেকের একটি শুটকি মহালে কাজ করেন শহর বানু (৬২)। দৈনিক ৪০০ টাকা মজুরীতে কাজ করে দুই বেলা আহার জোগানো কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে স্বামী–সন্তানহারা এ নারী শ্রমিকের। থাকেন ছোট্ট একটি ঝুপরিতে।

কাজে গেলে খাওয়া জোটে, কাজ না থাকলে না খেয়ে থাকেন। এরমধ্যে শীতে গরম কাপড়ের অভাবে দুর্ভোগ পোহাতে হয় যাপিত জীবনে।

তাই হাতে নতুন কম্বল পেয়ে শহর বানু বলেন, ” হম্বল পাইয়রে ইয়া আরাম গরি গুম যাইত পাইজ্জম, আল্লাহ তোয়ারারে রামত গরুক।”

শহর বানুর মতো নাজিরারটেক শুটকি মহালের অর্ধশতাধিক নারী শ্রমিকদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এমবোলডেন বাংলাদেশ।

সংগঠনটির সভাপতি ইনজামামুল হক জানান, পুরো শীতকাল জুড়ে এই কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

বিত্তবানদের শীতার্তদের পাশে দাড়ানোরও আহবান
জানান সাধারণ সম্পাদক শাফকাত শাহরিয়ার রশিদ।

শীতার্তদের কম্বল বিতরনের এই কর্মসূচির সহযোগী প্রতিষ্ঠান রিভারহিল ট্রাভেল এন্ড ট্যুরিজম এর প্রধান নির্বাহী ইব্রাহিম খলিল বলেন, এধরণের কর্মসূচিতে তাদের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page