Sunday, February 25, 2024

উখিয়ায় চেয়ারম্যানের চেয়ার সামলেছেন যারা

বিশেষ প্রতিনিধি

১৯৮৫ সালে সারাদেশে প্রথমবারের মতো উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেবার সীমান্ত উপজেলা উখিয়ার প্রথম চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন মাহামুদুল হক চৌধুরী।

তিনি উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের বাসিন্দা।

দ্বিতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়লাভ করেন  প্রয়াত নুরুল ইসলাম চৌধুরী প্রকাশ ঠান্ডা মিয়া। ১৯৯০ সালে অনুষ্ঠিত হয় এই নির্বাচন, তবে ১৯৯১ সালে উপজেলা পরিষদ অধ্যাদেশ বাতিল হয়ে যায়।

১৮ বছর পর ২০০৯ সালে স্থানীয় সরকার ব্যবস্থায় আবারো ফিরে আসে উপজেলা পরিষদ। সেবছর অনুষ্ঠিত তৃতীয় উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরীকে মাত্র ১৩০০ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন জামায়াত নেতা এডভোকেট শাহজালাল চৌধুরী।

ঐ নির্বাচন থেকে নতুন প্রবর্তিত পদ ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) হিসেবে এস এম শাহ আলম
ও ভাইস চেয়ারম্যান ( মহিলা) নির্বাচিত হন শাহীন আক্তার।

২০১৩ সালের ২৩ এপ্রিল সাম্প্রদায়িক উস্কানি, সহিংস ঘটনা ও জনদুভোর্গ সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হয়ে ফৌজদারি অপরাধে অভিযুক্ত হওয়ায় শাহজালাল চৌধুরীকে  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দেয় স্থানীয় সরকার বিভাগ। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান ভাইস চেয়ারম্যান এস এম শাহ আলম।

২০১৪ সালে চতুর্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন বর্তমান উখিয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি সরোয়ার জাহান চৌধুরী। তিনি সেসময় বর্তমান কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবির চৌধুরীকে পরাজিত করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ)  নির্বাচিত হন বর্তমান উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ চৌধুরী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে জয়লাভ করেন ছেনুয়ারা বেগম।

পরবর্তীতে আইনি জটিলতার কারণে সরওয়ার জাহান চৌধুরী ও সুলতান মাহমুদ চৌধুরী স্বপদ থেকে অব্যাহতি পেলে ছেনুয়ারা বেগম ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পান।

সর্বশেষ ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত পঞ্চম নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব শফিউল আলমের ভাতিজা জাহাঙ্গীর আলম জয়লাভ করেন, বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় কামরুন নেচ্ছা বেবী মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের চেয়ারে আসীন হন।

প্রথম সভার হিসেবে চলতি বছরের ০৬ মে এই পরিষদের মেয়াদ পূর্ণ হতে যাচ্ছে এবং নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আসন্ন রমজানের আগে অথবা পরে যেখানে অনুষ্ঠিত পারে ষষ্ঠ নির্বাচন।

দ্বিতীয় থেকে পঞ্চম নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত প্রত্যেকেই উপজেলার প্রাণকেন্দ্র হিসেবে পরিচিত রাজাপালং ইউনিয়ন (সদর) এর বাসিন্দা।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page