Thursday, February 29, 2024
spot_img

কুতুবদিয়ায় জালাল আহমেদের বঙ্গবন্ধু কমপ্লেক্সে যুক্ত হলো মসজিদ

আবুল কাসেম

জাতির পিতার ঘনিষ্ঠ সহচর বীর মুক্তিযোদ্ধা জালাল আহমেদ কুতুবদিয়ার নিভৃতপল্লী দক্ষিন ধুরংয়ে গড়ে তুলেছেন বঙ্গবন্ধু পরিবার কমপ্লেক্স।

যেখানে রয়েছে ঈদগাঁও মাঠ, জানাজার মাঠ,পুকুর। এছাড়াও এতিমখানা, হেফজখানা, ফুরকানিয়া মাদ্রাসায় শতাধিক শিক্ষার্থী বিনামূল্যে গ্রহণ করছে ধর্মীয় শিক্ষা।

সেই বঙ্গবন্ধু পরিবার কমপ্লেক্সে এবার নির্মাণ করা হলো মসজিদ,যার নাম দেয়া হয়েছে মসজিদে নামিরা।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) জুমার নামাজ আদায়ের মধ্যদিয়ে ৩৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই মসজিদের উদ্বোধন করা হয়।

দৃষ্টিনন্দন এই মসজিদে ২০০ মুসল্লী একসাথে নামাজ আদায় করতে পারবে।

নিজ অর্থায়নে জালাল আহমেদ দীর্ঘ ৫ মাসের কর্মযজ্ঞে এই মসজিদ নির্মাণ করেন।

মূলত ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু স্ব পরিবারে শাহাদাত বরনের পর থেকেই তিনি পরিকল্পনা করেন জাতির পিতার স্মৃতি ধরে রাখার।

সে পরিকল্পনাকে কাজে লাগিয়ে নিজের জমানো টাকা আর সন্তানদের পাঠানো পারিবারিক অর্থে গড়ে তুলেছেন এই কমপ্লেক্স, যাতে যুক্ত হলো মসজিদ।

তিনি জানান,বঙ্গবন্ধুকে ভুলে যাওয়া সম্ভব না-কেবল ভালোবাসা থেকেই এই উদ্যোগ।

মসজিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসে সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক বলেন,জালাল আহমেদ বঙ্গবন্ধুর সান্নিধ্য পেয়েছেন।বঙ্গবন্ধুর প্রতি জালাল আহমদের আনুগত্য প্রেরনা হয়ে থাকবে।

তিনি বঙ্গবন্ধু পরিবার কমপ্লেক্সের সার্বিক কল্যাণে কাজ করার কথা জানান।

এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কুতুবদিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, এ প্রয়াস বঙ্গবন্ধুর প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসার প্রয়াস। জালাল আহমেদ ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন,বঙ্গবন্ধুর প্রতি তাঁর এই উদ্যোগ প্রসংশনীয় নয় উদাহরণযোগ্য।

শেখ হাসিনা বালিকা মাদ্রাসা, শেখ রাসেল বালক মাদ্রাসাসহ ১৬ টি প্রতিষ্ঠান এই বঙ্গবন্ধু পরিবার কমপ্লেক্সে স্থাপনের পরিকল্পনা রয়েছে জালাল আহমদের।

তিনি কোনো সাহায্য চান না, এমনকি রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতাও চান না, শুধু চান বঙ্গবন্ধু চিরঞ্জীব থাকুক।

আরও খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

জনপ্রিয় সংবাদ

You cannot copy content of this page